Uncategorized

ইকরচালী চড়কডাঙ্গা বাজারে মাদকের রমরমা ব্যবসা চলছে

তারার আলো খবর: রংপুরের তারাগঞ্জ উপজেলার ইকরচালী ইউনিয়নের চড়কডাঙ্গা বাজারে করোনার সময়েও চলছে দিনরাত মাদকের রমরমা ব্যবসা। ইয়াবা, ফেনসিডিল ও গাঁজাসহ সব ধরনের নেশা জাতীয় মাদক এখন হাত বাড়ালেই পাওয়া যাচ্ছে।

বিশেষ করে উঠতি বয়সের তরুণেরা মাদক সেবনে জড়িয়ে পড়েছে। এসব মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে কথা বলতে গেলে উল্টো প্রতিবাদকারীদের হেনস্থা করারও অভিযোগ রয়েছে।
জানা গেছে, ইকরচালী চড়কডাঙ্গা এলাকার তালিকাভুক্ত বিভিন্ন মাদক বিক্রেতারা বেশ কিছুদিন গা-ঢাকা দিয়ে থাকলেও বর্তমানে আবার এলাকায় এসে আবারো ইয়াবা, ফেনসিডিল, গাঁজাসহ সব ধরনের নেশা জাতীয় মাদকের ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। কখনো আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর চোখ ফাঁকি দিয়ে, আবার কখনো তাদের সামনেই বিভিন্ন জায়গায় চলছে এসব মাদক বিক্রি। নাম প্রকাশ না করার শর্তে ওই এলাকার মাদকের এক খুচরা বিক্রেতা বলছেন, এলাকায় মাদক ব্যবসায় করতে গেলে থানা পুলিশকে ম্যানেজ না করে টিকে থাকা অসম্ভব। ব্যবসা করতে গেলে কিছু পুলিশকে ম্যানেজ করতে হয়।
ইকরচালী ইউনিয়নের চড়কডাঙ্গা গ্রামের কয়েকজন সমাজের প্রতিষ্ঠিত মানুষ নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, মাদক ব্যবসায়ী আর সেবনকারীদের কারণে ছেলে-মেয়ে নিয়ে ভদ্রভাবে এলাকায় বসবাস করাটা দুঃসাধ্য হয়ে উঠেছে।

এলাকাবাসীর এক অভিযোগে জানাগেছে, ইতিপূর্বে পুলিশের হাতে মাদকসহ গ্রেফতার হয়ে জেল হাজত খেটে বেশ কিছুদিন আত্মগোপন অথবা গা ঢাকা দিয়ে থেকে আবার এলাকায় ফিরে এসে আবারও মাদক ব্যবসায় জড়িয়ে পড়েছে। তারা রংপুর,সৈয়দপুর,বদরগঞ্জ সহ বিভিন্ন এলাকায় মাদকদ্রব্য সংগ্রহ করে চড়কডাঙ্গা বাজার এলাকায় বিক্রি করছে। দিনে-রাতে এ মাদক বিক্রি ও কেনাবেচা হওয়ায় এলাকার পরিবেশ দুষিত করে তুলছে। করোনার কারণে বরাতি উচ্চ বিদ্যালয় বন্ধ থাকায় মাদক বিক্রেতারা স্কুলের বারান্দা সহ চিপাচাপা গলিতে মাদক কেনা বেচা করছে। সন্ধ্যা হলে স্কুলের পুরো মাঠ সহ চড়কডাঙ্গা বাজারের আশে-পাশে ঘুরে ঘুরে মাদক বিক্রি করছে।
এলাকাবাসী বরাতি চড়কডাঙ্গা বাজার সরেজমিনে পরিদর্শন করে মাদক বিক্রেতা ও সেবনকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য স্থানীয় প্রশাসনের নিকট দাবী জানিয়েছেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button