জাতীয়

উলিপুরে ১১ সন্তানের বাবা সেই প্রধান শিক্ষক সাময়িক বরখাস্ত

উলিপুর(কুড়িগ্রাম)প্রতিনিধি : কুড়িগ্রামের উলিপুরে ভূয়া অভিভাবক সেজে ১৭ শিক্ষার্থীর ৩১হাজার ৮৫০ টাকা আত্মসাতের ঘটনায় মাহবুবার রহমান নামের এক প্রধান শিক্ষককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। গত বুধবার (৩০ জুন) রংপুর বিভাগীয় উপ-পরিচালক মোঃ মুজাহিদুল ইসলাম স্বাক্ষরিত চিঠিতে উপবৃত্তির টাকা আত্মসাতের অভিযোগ প্রাথমিক তদন্তে প্রমাণিত হওয়ায় সরকারি কর্মচারী(শৃঙ্খলা ও আপিল ) বিধিমালা,২০১৮ এর ৩ (খ), (ঘ) ধারায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন, কুড়িগ্রাম জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. শহিদুল ইসলাম।
উপজেলার ধরনীবাড়ী ইউনিয়নের মাদারটারী পূর্বপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাহবুবার রহমান শিক্ষার্থীদের জন্য বরাদ্দকৃত উপবৃত্তির তালিকায় তিনি, তার স্ত্রী সাবিনা বেগম, ছেলে সাদেকুল ইসলাম এবং মাইনুল ও েেমহেদী নামে দুই শ্যালকের মোবাইল নম্বর দিয়ে ভূয়া অভিভাবক সেজে ৩১ হাজার ৮৫০ টাকা আত্মসাৎ করেন। এ ঘটনায় মোসলেম উদ্দিন নামে এক অভিভাবক সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ করেন। এ নিয়ে বিভিন্ন জাতীয়, স্থানীয় দৈনিক ও অনলাইনে পত্রিকায় খবরটি প্রকাশিত হয়। উপবৃত্তির অর্থ আত্মসাতের সংবাদটি রংপুর বিভাগীয় উপপরিচালক মোঃ মুজাহিদুল ইসলামের দৃষ্টি গোচর হলে তিনি সংশ্লিষ্ট শিক্ষা কর্মকর্তাকে তদন্তের নির্দেশ দেন। তদন্তে অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় ওই দিনই (গত বুধবার) প্রধান শিক্ষক মাহাবুবার রহমানকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।
জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকতা মোঃ শহিদুল ইসলাম বলেন, ভূয়া অভিভাবক সেজে উপবৃত্তির টাকা আত্মসাতের অভিযোগটি আমরা গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করি। তদন্তে প্রাথমিকভাবে সত্যতা পাওয়া গেছে। এ বিষয়ে ওই প্রধান শিক্ষকও লিখিতভাবে স্বীকারোক্তি দিয়েছেন। শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তির টাকা তিনি আত্মসাৎ করতে পারেন না। তাই বিধিমোতাবেক তাকে সাময়িক বরখাস্ত করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button