কুড়িগ্রাম

কুড়িগ্রামে বাংলাদেশী ভেবে ভারতীয়কে গুলি করে হত্যা করল বিএসএফ

কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধিঃ কুড়িগ্রামের রৌমারী সীমান্তে মোহাম্মদ আলী (২০) নামে ভারতীয় এক নাগরিককে গুলি করে হত্যা করেছে ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) এর টহলদলের সদস্যরা। সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে আটটার দিকে উপজেলার খেতারচর সীমান্তের আন্তজার্তিক সীমানা ১০৫৪-১০৫৫ পিলারের নিকট এ ঘটনাটি ঘটে। 

নিহত মোহাম্মদ আলী ভারতের আসাম রাজ্যের হাটশিংঙিমারী জেলার পুড়ান দিয়াড়া থানাধীন পুড়ান ছাটকড়াইবাড়ীর মন্ডল কান্দি গ্রামের জাকির হোসেনের পুত্র। সে স্থানীয় এক কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্র।
সীমান্তের একাধিক তথ্যসূত্রে জানা গেছে, ভারতীয় কাটাতারের ওপরে বাঁশের তৈরি আড়কি লাগিয়ে গরু পারাপারের উদ্যোশে বাংলাদেশের অভন্তরে ঢুকে পড়ে মোহাম্মদ আলী। পড়ে ১৫ থেকে ২০ জনের একটি সংঘব্ধ দল মিলে অবৈধভাবে ভারতীয় গরু পারাপারের সময় ভারতের দ্বীপচর বিএসএফ ক্যাম্পের টহলরত সদস্যরা বাংলাদেশী গরু চোরাকারবারিদের লক্ষ করে গুলি ছুঁড়ে। 

এসময় মোহাম্মদ আলী নামের এক ভারতীয় চোরাকারবারি গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলে মারা যায়। পড়ে কাটাতারের গেট খুলে মরদেহ উদ্ধার করে ক্যাম্পে নেয় ভারতীয় বিএসএফের সদস্যরা।
স্থানীয় ইউপি সদস্য মিজানুর রহমান জানান, সীমান্তে বাংলাদেশী ভেবে ভারতীয় নাগরিককে গুলি করে হত্যা করেছে বলে লোকমুখে শুনেছি। তবে কি কারণে গুলি করেছে তা আমার জানা নেই।
সীমান্তে হত্যাকান্ডের বিষয় মুঠোফোনে জানতে চাইলে দাঁতভাঙ্গা বিজিবি ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার জয়েন উদ্দিন স্বীকার করে বলেন, বিএসএফের গুলিতে ভারতীয় এক নাগরিক নিহত হওয়ার খবর শুনেছি। তবে নিশ্চিত হয়েছি সে বাংলাদেশী নাগরিক না।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button