রংপুর

কুড়িগ্রামে স্ত্রীকে আনতে গিয়ে পথিমধ্যে স্বামীর রহস্যজনক মৃত্যু

কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধিঃ
কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে রহস্যজনক ভাবে মোশাররফ হোসেন লিমন (২২) নামে এক অটোচালক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। মৃত ওই যুবক স্ত্রীকে আনতে শশুরবাড়ী যাওয়ার সময় পথিমধ্যে একটি রাইস মেইলের চাতালে বিষপান করে অজ্ঞান হয়ে পরলে স্থানীয়রা তার শশুরবাড়ীর লোকজনকে খবর দেয়। পরে তারা অসুস্থ্য মোশাররফকে প্রথমে ফুলবাড়ী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। 

নিহত যুবক উপজেলার নাওডাঙ্গা ইউনিয়নের পশ্চিম ফুলমতি গ্রামের মকবুল হোসেনের ছেলে। এ ঘটনার পর পুলিশ স্বজনদের বাড়ী থেকে মরদেহ উদ্ধার করে ফুলবাড়ী থানায় নিয়ে আসে। মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর)  দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ কুড়িগ্রাম মর্গে প্রেরণ করা হয়।

জানা যায়, প্রায় দেড় বছর পূর্বে মোশাররফ হোসেন লিমনের সাথে পাশ্ববর্তী ফুলবাড়ী সদর ইউনিয়নের পানিমাছকুটি কাশিয়াবাড়ী এলাকার আশরাফুল আলমের মেয়ে রাশিদা খাতুনের বিয়ে হয়। গত এক সপ্তাহ পূর্বে লিমন স্ত্রীকে শশুরবাড়ীতে রেখে আসে।সোমবার (২৫ অক্টোবর) রাত ৮টার দিকে রাতের খাবার খেয়ে স্ত্রীকে আনতে শশুরবাড়ীর পথে মটর সাইকেলযোগে সে রওয়ানা দেয়। এরপর থেকে তার কোন খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। পরে রাত পৌনে ১১টার দিকে শশুরবাড়ী থেকে একশ গজ দূরে ফুলবাড়ী-বালাহাট সড়কে পানিমাছকুটি নামক এলাকায় একটি চাতালে তাকে অজ্ঞান অবস্থায় পাওয়া যায়।

মোশাররফ হোসেন লিমনের স্ত্রী রাশিদা খাতুন জানান, স্থানীয়রা একটি চাতালে তার স্বামীকে অজ্ঞান অবস্থায় পেয়ে তাদের পরিবারে খবর পাঠায়। আমরা দ্রুত চাতাল থেকে স্বামীকে উদ্ধার করে ফুলবাড়ী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এনে ভর্তি করি। ঘটনাটি লিমনের বড় ভাই গোলাম মোস্তফাকে অবগত করা হয়।

ফুলবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ( ওসি) রাজীব কুমার রায় ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মঙ্গলবার সকালে নিহত যুবকের মরদেহ উদ্ধার করে ফুলবাড়ী থানায় নিয়ে আসা হয়। পরে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ময়না তদন্তের জন্য লাশ কুড়িগ্রাম মর্গে প্রেরণ করা হয়। এ ব্যাপারে থানায় একটি ইউডি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button