রংপুর

ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে কোচিং শিক্ষক আটক

তারার আলো অনলাইন ডেস্ক: রংপুরের পীরগাছায় ৫ম শ্রেণির স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে বিপুল চন্দ্র (৪৫) নামে এক কোচিং শিক্ষককে আটক করেছে পুলিশ। এলাকার প্রভাবশালীদের চাপে ছাত্রীর বাবা মামলা করতে রাজি না হওয়ায় তাকে ১৫১ ধারায় গ্রেফতার দেখিয়েছে পুলিশ। আজ মঙ্গলবার দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়।পুলিশের হাতে আটক বিপুল চন্দ্র উপজেলার পূর্ব ব্রাহ্মণীকুন্ডা গ্রামের পুন্ন চন্দ্রের পুত্র বলে জানা গেছে।

পুলিশ জানায়, ওই শিক্ষার্থী উপজেলার পাওটানা বাজারে এমবিশন কোচিং সেন্টারের নিয়মিত ছাত্রী। গতকাল সোমবার দুপুরে কোচিং করতে গেলে অন্য শিক্ষার্থী না থাকার সুযোগে শিক্ষক বিপুল চন্দ্র দরজা বন্ধ করে তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এ সময় ওই ছাত্রীর চিৎকারে আশেপাশের লোকজন দৌড়ে এসে বিপুল চন্দ্রকে আটক করে। পরে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদে নিয়ে তাকে আটকে রাখা হয়।

এ খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে আসলেও স্থানীয়ভাবে বিষয়টি সমাধানের কথা বলা হয়। এ ঘটনায় ইউনিয়ন পরিষদ মাঠে গতকাল সোমবার রাত ১০টায় সালিস বৈঠকের আয়োজন করে এলাকার প্রভাবশালীরা।

একটি নির্ভরযোগ্য সূত্রে বিষয়টি জানার পর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শামসুল আরেফীনের হস্থক্ষেপে সালিস বৈঠক পন্ড করে দেয়। পুলিশ বিপুল চন্দ্রকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। এ বিষয়ে ওই ছাত্রীর বাবা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আমি ঘটনার শুরু থেকে প্রভাবশালীদের চাপে রয়েছি।

পীরগাছা থানার ওসি আজিজুল ইসলাম বলেন, ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে কোচিং শিক্ষক বিপুল চন্দ্রকে আটক করা হয়। তবে ওই ছাত্রীর বাবা মামলা করতে রাজি না হওয়ায় ১৫১ ধারায় গ্রেফতার দেখিয়ে বিপুল চন্দ্রকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

তারার আলো/ এ.কে.বি

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button