রংপুরস্থানীয়

তারাগঞ্জে এবার রাধাকৃষ্ণের মূর্তি ভাঙ্গার অভিযোগ, গ্রেফতার -২

তারার আলো খবর:- তারাগঞ্জ উপজেলায় রাধাকৃষ্ণের এক মূর্তি ভেঙ্গে ফেলার অভিযোগে বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) মদন রায়(৪০) ও গোপাল রায়(৪২) নামের দুই ব্যক্তিকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে তারাগঞ্জ থানা পুলিশ। আটককৃত মদন রায় ও গোপাল রায়ের বাড়ি উপজেলার হাড়িয়ারকুঠি ইউনিয়নের উত্তর নারায়নজন জেলেপাড়া গ্রামে।

মামলা সুত্রে জানা গেছে, গত মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮ ঘটিকায় উত্তর নারায়নজন জেলোপাড়া গ্রামের মঙ্গল রায়ের পারিবারিক রাধাকৃষ্ণ মন্দিরে পায়খানা করাকে কেন্দ্র করে একই এলাকার মদন রায় ও তার ভগ্নিপতি গোপাল রায়ের সাথে মঙ্গল রায়ের ঝগড়া হয়। বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) সকাল প্রায় ৬ ঘটিকায় মঙ্গল রায়ের ছেলে মনোরঞ্জন রায়(৩২) দেখতে পায় যে, তাদের পারিবারিক মন্দিরে রাধাকৃষ্ণের মূতিটি ভেঙ্গে ফেলা হয়েছে। এ খবর প্রথমে পরিবার ও পরে এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে সেখানে ভাঙ্গা মূর্তি দর্শনে লোকের ভিড় জমে।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থান পরিদর্শন করেন উপজেলা আওঅমীলীগের সাধারন সম্পাদক ও হাড়িয়ারকুঠি ইউপি চেয়ারম্যান হারুন অর রশিদ বাবুল,বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ রংপুর জেলা কমিটির সহ-সভাপতি ও উপজেলা কমিটির সভাপতি এবং হাড়িয়াকুঠি ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান বাবু কুমারেশ রায়, উপজেলা কমিটির সাধারন সম্পাদক পাপন দত্ত, সহ-সম্পাদক প্রবীর কুমার কাঞ্চন, সাংগঠনিক সম্পাদক হরলাল রায়, প্রমুখ। পরে মঙ্গল রায়ের ছেলে মনোরঞ্জন রায় থানায় হাজির হয়ে অভিযুক্ত মদন রায় ও তার ভগ্নিপতি গোপাল রায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ করলে থানা পুলিশ বৃহস্পতিবার দুপুরে তাদের দুজনকেই বাড়ি থেকে আটক করে থানায় নিয়ে আসেন।

তারাগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ফারুক আহম্মদ জানান, এ বিষয়ে থানায় মামলা হয়েছে। মামলায় অভিযুক্তদের গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে রংপুর জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button