স্থানীয়

তারাগঞ্জে মা ইলিশ সংরক্ষণে অভিযান শুরু

তারার আলো খবর : বাংলাদেশ নদী মাতৃক দেশ। বাংলাদেশে বসবাসরত মানুষদের বলা হয় বাঙ্গালী। আর নদী মাতৃক দেশ হওয়ায় এদেশের মানুষদের বলা হয় মাছে ভাতে। এদেশের জাতীয় মাছ ইলিশ। স্বাদে গন্ধে সেরা হওয়ায় ইলিশ মাছের চাহিদা সর্বত্র। শুধু বাংলাদেশেই নয়, বর্তমানে সারাবিশ্বেই রয়েছে ইলিশের ব্যাপক চাহিদা। ফলে দিন দিন সংকটের মুখে পড়ে যাচ্ছে ইলিশের পরিমাণ। বর্ষার পরে অক্টোবর মাসে ইলিশ মাছের প্রজনন সময়। তাই যাতে মা ইলিশ আহরণ করে ইলিশ ধ্বংস না হয় এ লক্ষ্যে ৪ অক্টোবর থেকে ২৫ অক্টোবর পর্যন্ত মোট ২২ দিন সারাদেশে ইলিশ আহরণ, পরিবহন, মজুদ, বাজারজাতকরণ, ক্রয়-বিক্রয় ও বিনিময় শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। এসময় মা ইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুম হওয়ায় উক্ত ২২টি দিন সরকার “ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান-২০২১” ঘোষণা দিয়েছেন। উক্ত ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান ২০২১ উপলক্ষে রংপুরের তারাগঞ্জ উপজেলায় বৃহস্পতিবার প্রচার প্রচারণা চালানো হয়। তারাগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন হাট-বাজারে উপজেলা মৎস্য দপ্তরের আয়োজনে জনসচেতনতামূলক এ প্রচারণা চালানো হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা কামরুন নাহার, ক্ষেত্র সহকারি স্বর্ণ কমল কুন্ডু, মৎস্য চাষি গৌরাঙ্গ প্রমুখ। এসময় উক্ত ২২ দিন আইন অমান্য করে ইলিশ মাছ ধরা, পরিবহন বা মজুদ করা, বাজারজাত বা ক্রয়-বিক্রয় করা ও বিনিময়সহ মৎস্য আইন অমান্য করলে কমপক্ষে ১ বছর থেকে সর্বোচ্চ ২ বছরের সশ্রম কারাদন্ড অথবা পাঁচ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা অথবা উভয় দন্ড হতে পারে বলে জানান উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা কামরুন নাহার।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button