রংপুর

পরকীয়া প্রেমের জেরে স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার,,রংপুর: রংপুরের পীরগাছায় পরকীয়া প্রেমের জেরে হাজেরা বেগম(৩৬) নামে তিন সন্তানের এক জননীকে স্বামীর বিরুদ্ধে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।শুক্রবার(১৩ আগস্ট) ভোরে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এর আগে বৃহস্প্রতিবার রাতে উপজেলার হাউদার পাড় নামক গ্রামে এঘটনা ঘটে।নিহত হাজেরা ওই গ্রামের সাহেব আলীর স্ত্রী।নিহতের পরিবার ও পুলিশ জানায়, হাউদার পাড় গ্রামের মোন্নাফ মিয়ার ছেলে সাহেব আলীর সাথে প্রায় ১৫ বছর আগে হাজেরা বেগমের বিয়ে হয়। তাদের দাম্পত্য জীবনে তিন কন্যা সন্তানের জন্ম নেয়। কিন্তু পরপর তিন কন্যা সন্তানের জন্ম হওয়ায় স্ত্রী হাজেরা বেগমের সাথে সাহেব আলী দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়েন। তিনি পুত্র সন্তানের আশায় দ্বিতীয় বিয়ের অনুমতি চান স্ত্রীর নিকট। এঘটনায় একাধিক বার হাজেরা বেগমকে শরীরিক নির্যাতন করেন সাহেব আলী। সম্প্রতি সময় সাহেব আলী একাধিক পরকীয়া প্রেমে  জড়িয়ে পড়েন। বিষয়টি জানাজানি  হলে আবারো স্বামী ও স্ত্রীর মাঝে দ্বন্দ্বের সৃস্টি হয়। এরই জের ধরে বৃহস্পতিবার রাতে স্ত্রী হাজেরা বেগমকে বেধরক মারপিট করেন সাহেব আলী। পরে হাজেরা বেগমকে গুরুত্বর অসুস্থ্য অবস্থায় উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার ভোরে মারা যান।নিহতের ছোট ভাই ফজর আলী জানান, তার বোনকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার প্রস্তুতি চলছে।রংপুর মেডিকেল কলেজের ফরেনসিক বিভাগের অধ্যাপক ডা. আসমাউল হুসনা লাশের ময়নাতদন্ত করেন। তিনি জানান, নিহত গৃহবধূ হাজেরার মাথা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে ক্ষত থাকলেও তার মৃত্যুর সঠিক কারণ জানতে ফরেনসিক রিপোর্টের জন্য অপেক্ষা করতে হবে।পীরগাছা থানার ওসি আজিজুল ইসলাম জানান, এবিষয়টি আমি জেনেছি। এখন পর্যন্ত থানায় কোন অভিযোগ করা হয়নি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button