রংপুর

পাগলাপীরে ডালিয়া সড়ক হতে পল্লী বিদ্যুৎ সদর দপ্তর যাওয়া সড়কটি পাকা করনের দাবী

পাগলাপীর(রংপুর)প্রতিনিধি:-

রংপুর সদর উপজেলার পাগলাপীর হরিদেবপুর ইউনিয়নের ডালিয়া-বুড়িমারী-পাগলাপীর সড়ক হতে রংপুর-দিনাজপুর-ঢাকা হাইওয়ে সড়কের রংপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি -২ এর সদর দপ্তর যাওয়া হাফ কিলোমিটার সড়কটি দীর্ঘদিন ধরে পাকা করন না হওয়ায় সড়কের চলাচলরত শিক্ষার্থী পথচারী সহ সাধারন মানুষজনের দুর্ভোগ বেড়েই চলছে।

জানাগেছে সদর উপজেলার পাগলাপীর হরিদেবপুর ইউনিয়নের গোকুলপুর চওড়াপাড়া গ্রামে ডালিয়া সড়কের সাংবাদিক সেলিম এর বাড়ির সামন হতে আওয়ামীলীগ নেতা ভোলানাথ সরকার ও ব্যবসায়ী কিষব চন্দ্র সরকার এর বাড়ির সামন দিয়ে রংপুর পবিস-২ এর পাগলাপীর রংপুর সদর দপ্তর যাওয়া হাফ কিলোমিটার যাওয়া সড়কটি ডালিয়া-বুড়িমারী ও হাইওয়ে দুটি সড়কের সংযুক্ত সড়ক হলেও সড়কটি দীর্ঘদিন ধরে পাকা করন করা হয়নি। কবে নাগাদ সড়কটি পাকা করন করা হবে আজও জানে না সড়কে চলাচলরত ভুক্তভোগী অর্ধলক্ষ জনগোষ্ঠী।

সরেজমিনে সড়কের চলাচলরত মহাদেবপুর মাহাশ্বপাড়া গ্রামের বাসিন্দা অত্র ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক দুলাল চন্দ্র রায়, গোকুলপুর চওড়াপাড়া গ্রামের বাসিন্দা ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার আল আমিন সহ বিভিন্ন মহল অভিযোগ করে সাংবাদিক কে বলেন সড়কটি দীর্ঘদিন ধরে পাকা করন হচ্ছে না।

সড়কটি পাকা করন না হওয়ায় বিশেষ করে বর্ষা মৌসুমে সামান্য বৃষ্টিপাতের পানিতে সড়কটির বিভিন্ন স্থানে পানি জমে উঠে জলাশয় সৃষ্টি, কোথাও পানির স্লোতে সড়কের পাড়ি ভেঙ্গে গেছে। আবার কোথাও কোথাও সড়কটিতে কাঁদা পানি একাকারে পরিনত হয়ে পড়ছে। এর ফলে সড়কটিতে রিক্সা,ভ্যান,অটো,সিএনজি,বাই সাইকেল, মটর সাইকেল, কার,মাইক্রো,পিকআপ সহ নানা হালকা পাতলা যানবাহন চলাচল করা তো দূরের কথা শিক্ষার্থী পথচারী সহ সাধারন মানুষজনের চলাচল দূঃসাধ্য হয়ে পড়ছে।

তাই সড়কে চলাচলরত ভুক্তভোগী সাধারন মানুষজন অবিলম্বে পাগলাপীরের ডালিয়া-বুড়িমারী সড়ক হতে রংপুর- দিনাজপুর-ঢাকা হাইওয়ে সড়কের রংপুর পবিস-২ এর সদর দপ্তর যাওয়া হাফ কিলোমিটার সড়কটি পাকা করনের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের অত্র সংশ্লিষ্ট রংপুর সদর-৩ আসনের এমপি জাতীয় পার্টির যুগ্ম মহাসচিব রাহগির আলমাহি সাদ এরশাদ সহ সরকার ও প্রশাসনের উর্ধতম মহলের দৃষ্টি কামনা করছেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button