রংপুর

পীরগঞ্জে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করেন ত্রাণ ও দুর্যোগ প্রতিমন্ত্রী এনামুর রহমান

আমিনুল ইসলাম জুয়েল (রংপুর):-

রংপুরের পীরগঞ্জে সাম্প্রদায়িক হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করেছেন ত্রাণ ও দুর্যোগ প্রতিমন্ত্রী এনামুর রহমান। এসময় তিনি ঘটনার ছয় দিন পর চুলা জ্বালিয়ে হামলার শিকার স্থানীয় বাসিন্দা পুষ্প রানীর  চুলায় রান্নার হাঁড়ি চড়িয়ে দেন। ঘটনার ছয় দিন পরো অনেকের বাড়িতে এতদিন ছিল না কোনো রান্নার আয়োজন।

শনিবার (২৩ অক্টোবর) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পীরগঞ্জে ক্ষতিগ্রস্ত হিন্দু গ্রাম পরিদর্শনে যান ত্রাণ ও দুর্যোগ প্রতিমন্ত্রী এনামুর রহমান। সেখানে তিনি বাড়ি বাড়ি গিয়ে হামলায় ক্ষতিগ্রস্তদের খোঁজখবর নেন। পরে পুষ্প রানীর বাড়িতে গেলে তার চুলায় রান্নার হাঁড়ি তুলে দেন তিনি। এ সময় জেলা প্রশাসক আসিব আহসানসহ সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। 

পুষ্প রানী বলেন, ‘এতদিন তো মন্দিরের ওটে (ওখানে) পাকশাক হইছে। সেখানে খাওয়া দাওয়া করছি। কাল আইতোত (রাতে) ওটে খাইচি। আইজ সবাই বাড়ি বাড়ি রান্না করোচি।’

মহাদেব চন্দ্র  বলেন, হামাক‘সংসার করি খাইতে যা কিছু নাগে সউগ কিচু দিচে। পাক করতে আর কোন সমস্যা নাই। ইউএনও স্যার কইচে সোগ (সব) তো দিচি, পাক করি খাও। তাই আইজ পাক করতে কইচি স্ত্রীকে।’

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মিজানুর রহমান বলেন, ‘৬১ পরিবারকে ১০১ বান্ডেল ঢেউটিন দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া নগদ অর্থের পাশাপাশি দেওয়া হয়েছে খাবার, দুটি করে কম্বল, শাড়ি-লুঙ্গি।’

উল্লেখ্য, গেল রোববার রাত সাড়ে ৯টার দিকে রামনাথপুরের করিমপুর উত্তর পাড়ার হিন্দুপল্লিতে হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা। এ সময় তারা বাসাবাড়িতে ভাঙচুর করে আগুন ধরিয়ে দেয়। অগ্নিসংযোগ ও ভাঙচুরে অংশ নেয় শত শত হামলাকারী। ওই হামলার ঘটনায় মোট তিনটি মামলা করা হয়েছে।

এসব মামলায় এখন পর্যন্ত ৫৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও লুটপাটের মামলায় ৩৭ আসামিকে তিন দিনের রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ।

ঘটনার অন্যতম হোতা সৈকত মন্ডল ও তার সহযোগী রবিউল ইসলামকে টঙ্গী থেকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button