রংপুর

প্রতিবন্ধী এক কিশোরীকে সংঘবদ্ধভাবে ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেফতার তিন

স্টাফ রিপোর্টার, রংপুর: রংপুরের পীরগঞ্জে বাকপ্রতিবন্ধী এক কিশোরীকে(১৩) সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় ৩ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।শুক্রবার (৬ আগস্ট) বিকালে উপজেলার ভেন্ডাবাড়ী ইউনিয়নের মিলকী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।গ্রেফতাররা হলেন ওই এলাকার নুরে সালাম মিয়ার ছেলে আজম মিয়া (২৩), একই গ্রামের আজিজল হকের ছেলে ডিজু মিয়া (২২) ও মিলকী গ্রামের আব্দুল হাই মিয়ার ছেলে শাহাদত (২০)।পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,  বাকপ্রতিবন্ধী ওই কিশোরী বৃহস্পতিবার রাতে বিদ্যুৎ না থাকায় বাড়ি সংলগ্ন পুকুর পাড়ে বসে ছিল। এ সময় প্রতিবেশী আজম মিয়া, ডিজু মিয়া  শাহাদত হোসেন ওই প্রতিবন্ধী কিশোরীকে জোরপূর্বক পাশের পরিত্যক্ত একটি বাড়িতে নিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ করে। এদিকে প্রতিবন্ধী কিশোরীকে তার বাবা-মা ও পরিবারের লোকজন খোঁজাখুঁজি করতে থাকে। পরে কিশোরীর কান্নার শব্দে তাকে উদ্ধার করে পরিবারের লোকজন।  বাড়িতে আসার পর তার বাবা-মাকে আকার ইঙ্গিতে ধর্ষণের কথা জানায়। 
খবর পেয়ে পুলিশ শুক্রবার ধর্ষকদের গ্রেফতারে অভিযানে নামে। এ সময় ভেন্ডাবাড়ী ইউনিয়নের মিলকী ও মাইকড়গ্রামের প্রায় ১৫জন যুবককে আটক করা হয়। ধর্ষিতা বাক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে দিয়ে ধর্ষকদের শনাক্ত করা হয়। এ সময় ধর্ষিতা প্রতিবন্ধী ৩জনকে শনাক্ত করলে ওই ৩ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।
রংপুর জেলা পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার (ডি সার্কেল) কামরুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনার শিকার বাক প্রতিবন্ধী হওয়ায় ধর্ষকদের শনাক্তে জঠিলতা ছিল। তবে আটককৃত যুবকদের মধ্যে ধর্ষকদের উপস্থিতি থাকায় জঠিলতা কেটেছে। ওই ঘটনায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা হয়েছে।##

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button