রংপুর

বদরগঞ্জে মানবপাচারকারী চক্রের দুই সদস্য গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার, রংপুর: রংপুরের বদরগঞ্জে মানব পাচারকারী চক্রের দুই সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-১৩। বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) বিকালে গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান রংপুর র‍্যাব-১৩ এর ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট মাহমুদ বশির আহমেদ।

গ্রেফতার পাচারকারী মুজিবুর রহমান মুছা (৫৫) গাইবান্ধা জেলার ও অহিদুল ইসলাম (৫০) রংপুরের বাসিন্দা।
বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, প্রায় তিন বছর আগে ভুক্তভোগীকে স্বল্প খরচে বিদেশে পাঠানোর কথা বলেন চক্রের দুই সদস্য। ভুক্তভোগী প্রথমে রাজি না হলে পরে তাকে নানাবিধ প্রলোভন দেখানো হয়। এরপর  ২০১৭ সালের ২৬ জুন তারা ভুক্তভোগীকে পাসপোর্ট ও ভিসা দেয়। তাদের ভিসা অনুযায়ী ভুক্তভােগী ২০১৮ সালের ৮ নভেম্বর কাতার হয়ে মধ্যপ্রাচ্যে গমন করেন।

ইরাকে পৌঁছানো মাত্রই মানব পাচারকারী চক্রের অন্য সদস্যরা তাদের সেখান থেকে নিয়ে একটি অজ্ঞাত কক্ষে বন্ধ করে রাখে এবং সেখানে তার মতো আরো ২১ জন ভুক্তভোগীকে দেখতে পান তারা। এরপর ভুক্তভোগীর উপর শুরু হয় অমানুষিক নির্যাতন, এমনকি যৌন নির্যাতনের করা হয়। এর পরেই র‍্যাব-১৩ এর একটি অভিযানিক দল গাইবান্ধা ও রংপুরের বদরগঞ্জে অভিযান চালিয়ে  মাদক পাচারকারী মুজিবুর রহমান মুছা ও অহিদুল ইসলামকে গ্রেফতার করেন। র‍্যাবের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে,মাদক পাচারের সাথে সম্পৃক্তার কথা স্বীকার করে।

র‍্যাব জানায়, গ্রামের সহজ সরল লোকদের বোকা বানিয়ে মানব পাচার করে আসছিলো একটি সংঘবদ্ধ চক্র। এ চক্রের মূল হোতা ডাক্তার লিটনের (৪৫)  সহযোগী বলে তারা স্বীকার করেছে। এ চক্রের সাথে জড়িতদের দ্রুত আইনের আওতায় নেয়া হবে। গ্রেফতারকৃত মানব পাচারকারীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যাবস্থা নেয়া হয়েছে বলে জানায় র‍্যাব ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button