নীলফামারী

ব্যালট বাক্স ছিনতাই ও পুড়িয়ে ফেলার প্রতিবাদে লাঙ্গল প্রতীকের প্রার্থীর সংবাদ সম্মেলন

তারার আলো অনলাইন ডেস্ক : নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে লাঙ্গল প্রতীক
প্রার্থীর জয় নিশ্চিত দেখে নৌকা প্রতীক প্রার্থীর সমর্থকরা কেন্দ্রে হামলা
চালিয়ে ব্যালট বাক্স ছিনতাই ও পুড়িয়ে ফেলার প্রতিবাদে লাঙ্গল প্রতীকের
চেয়ারম্যান প্রার্থী হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী স্থানীয় প্রেস ক্লাবে মঙ্গলবার
বিকালে সংবাদ সম্মেলন করেছে।
সংবাদ সম্মেলনে জাপা মনোনীত লাঙ্গল প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী হোসেন
শহীদ সোহরাওয়ার্দী লিখিত বক্তব্যে বলেন- কিশোরগঞ্জ সদর ইউনিয়ন পরিষদ
নির্বাচন সুষ্ঠভাবে হচ্ছিল। আমার জয় নিশ্চিত দেখে নৌকা প্রতীকের
চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ আনিছুল ইসলাম আনিছের নির্দেশে তার সমর্থকরা
লাঠি সোটা নিয়ে ৬নং ভোট কেন্দ্র রাজীব পল্লীশ্রী সরকারি প্রাথমিক
বিদ্যালয়ে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে। এসময় তারা একটি ব্যালট বাক্স ছিনতাই করে
পুড়িয়ে ফেলে। একটি ব্যালট বাক্সের ব্যালট পুড়িয়ে ফেলায় ও পরিস্থিতি
প্রিজাইটিং অফিসারের নিয়ন্ত্রেণের বাহিরে যাওয়ায় এ কেন্দ্রের ভোট স্থগিত
করা হয়। তিনি আরও জানান- এ ইউনিয়নের ৯টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে ৮ কেন্দ্রে
মোট ভোট পেয়েছি ৭ হাজার ৪ শ’ ৮৮ ভোট। নিকটতম প্রতিদ্বন্দি নৌকার
প্রতীকের প্রার্থীর ভোট সংখ্যার চেয়ে আমি ২ হাজার ২ শ’ ৫৪ ভোটে এগিয়ে
আছি। আমি ব্যালট বাক্স ছিনতাই ও হামলাকারীদের দৃষ্ঠান্তমূলক শাস্তির দাবীসহ
স্থগিতকৃত কেন্দ্রের ভোট দ্রæত ও সুষ্ঠভাবে গ্রহণের দাবী জানাচ্ছি।
এসময় উপস্থিত ছিলেন সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে মালেকা বেগম (হেলিকপ্টার),
সাধারণ সদস্য প্রার্থী গোলাম মওলা (তালা), কাসেম আলী ভাট্টি (ভ্যানগাড়ি),
আলতানুর রহমান (মোরগ), হোসেন আলী (বৈদ্যুতিক পাখা), গোলাম রব্বানী
মিন্টু (টিউবওয়েল) মার্কার প্রার্থী। তারাও সংবাদ সম্মেলনে ব্যালট বাক্স
ছিনতাই ও হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানিয়ে দ্রæত সুষ্ঠভাবে ভোট
গ্রহণের জন্য উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষে দৃষ্টি কামনা করে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button