রংপুর

রংপুরের আদালত চত্বরে আইনজীবীদের সংঘর্ষে আহত পাঁচ, এর মধ্যে গুরুত্বর আহত দুই

স্টাফ রিপোর্টার, রংপুরঃ- মামলার টাকার ভাগ-বাটোয়ারা নিয়ে রংপুরের আদালত চত্বরে আইনজীবীদের দুই পক্ষের সংঘর্ষে দুজন আহত হয়েছেন। রবিবার (৫ সেপ্টেম্বর) বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে রংপুরের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত এলাকায় একটি মামলার টাকার ভাগ-বাটোয়ারা নিয়ে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে বলে জানা গেছে।

এ বিষয়ে রংপুর আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুল হক প্রামাণিক বলেন, ‘দুই পক্ষই এ ঘটনায় পরস্পরের বিরুদ্ধে অভিযোগ দিয়েছে। আমি লিখিত অভিযোগ দিতে বলেছি। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত করে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

পুলিশ ও আইনজীবীরা জানিয়েছেন, একটি মামলার মক্কেলের কাছ থেকে নেওয়া টাকার ভাগ-বাটোয়ারা নিয়ে আইনজীবী আলাউদ্দিনের সঙ্গে অপর আইনজীবী মেজবাহ আহমেদের প্রথমে কথা কাটাকাটি হয়। এরপর হাতাহাতি এবং এক পর্যায়ে তা সংঘর্ষে রূপ নেয়। এ সময় দুই আইনজীবীর সমর্থকরাও একত্রিত হন। আদালত চত্বরে দফায় দফায় সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন তারা। এ সময় আইনজীবী মেজবাহ আহমেদ মাথায় গুরুতর আঘাত পেয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। তার মাথা ফেটে রক্ত ঝরতে থাকে। এ সময় আবারও দুই আইনজীবী এবং তাদের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে আইনজীবী আলাউদ্দিন ও জুনিয়র আইনজীবীসহ কমবেশী পাঁচজন আঘাত প্রাপ্ত হন। মাথা ফেটে গুরুত্বর আহত হন দুইজন আইনজীবী।

Exif_JPEG_420

এ বিষয়ে সংঘর্ষ চলাকালে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের নিচতলায় আইনজীবীদের ক্যানটিনে হামলা চালিয়ে চেয়ার-টেবিলসহ আসবাবপত্র ভাঙচুর করা হয়। এ ঘটনায় ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া, সংঘর্ষ চলার পর সিনিয়র আইনজীবীদের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। খবর পেয়ে রংপুর মেট্রোপলিটন কোতোয়ালি থানার ওসি (তদন্ত) রাজিবুজ্জামানসহ পুলিশ কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন ।

এ বিষয়ে আইনজীবী আলাউদ্দিন আহমেদ ও মেজবাহ আহমেদ সংঘর্ষের ঘটনা সম্পর্কে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে রাজি হননি।

রংপুর মেট্রোপলিটান কোতয়ালি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রজিবুজ্জামান বলেন, ‘আমরা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছি দুই পক্ষের বক্তব্য শুনে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবো।’

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button