রংপুর

রংপুরে এক সপ্তাহে তাপমাত্রা কমেছে ৫ ডিগ্রী সেলসিয়াস

তারার আলো অনলাইন ডেস্ক :- রংপুরে এক সপ্তাহের ব্যবধানে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা কমেছে ৫ ডিগ্রী সেলসিয়াস। বাংলা পঞ্জিকার অনুসারে এখন হেমন্তকাল হলেও সন্ধ্যা নামলেই শীত জানান দিচ্ছে আমি আসছি। সন্ধ্যার পরে অনেকেই শীতের পোষাক পড়ে বাড়ি থেকে বের হচ্ছেন।

রংপুর আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানা গেছে, রংপুরসহ আশপাশের এলাকাগুলোতে প্রতিদিনই তাপমাত্রা কমছে। গত সোমবার সকালে এই অঞ্চলের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৮ দশমিক ৫ ডিগ্রী সেলসিয়াসে নেমে এসেছে। গত এক সপ্তাহে সর্বনিম্ন তাপমাত্রার পরিসংখ্যানে দেখাগেছে ৩১ অক্টোবর ১৮ দশমিক ৩ সেলসিয়াস, ৩০ অক্টোবর ২০ দশমিক ৮ সেলসিয়াস, ২৯ অক্টোবর ২১ দশমিক ৫ সেলসিয়াস, ২৮ অক্টোবর ২২ দশমিক ৩ সেরসিয়াস ২৭ অক্টোবর ২২ দশমিক ৫ ডিগ্রী সেলসিয়াস ২৬ অক্টোবর ২৩ ডিগ্রী সেলসিয়াস ছিল। এছাড়া সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ২৯ থেকে ৩০ ডিগ্রী সেলসিয়াস উঠানামা করেছে। বাতাসের আদ্রতা গত এক সপ্তাহে সর্বোচ্চ ৯৬ শতাংশ ও সর্বনিম্ন ৪০ শতাংশে ছিল।

আনুষ্ঠানিকভাবে শীত মৌসুম শুরু হতে দেরি থাকলেও প্রকৃতিতে কয়েকদিন থেকে শীত বিরাজ করছে। সন্ধ্যার পরে অধিকাংশ মানুষকে ফুলহাতা সার্ট পড়ে ঘোরাফেরা করতে দেখা গেছে। বাসা-বাড়িতে অনেকেই কাঁথা কিংবা কম্বল মুড়ি দিয়ে ঘুমাতে শুরু করেছেন। স্কুলগামি শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা ছেলে মেয়েদের শীতের পোষাক পড়াতে শুরু করেছেন।

শহরের গুরুত্বপূর্ণ মোড়ে পিঠার দোকানগুলোতে জমজমাট কেনা বেচা হতে দেখা গেছে। তবে হঠাৎ করে ঠান্ডা পড়ায় এই অঞ্চলের মানুষের স্বাস্থ্য সমস্যা দেখা দিয়েছে।

স্থানীয় হাসপাতাল স্বাস্থ্য কেন্দ্রগুলোসহ বেসরকারী ডাক্তারদের চেম্বারে জ্বর সর্দি জনিত রোগীদের ভিড় বাড়ছে। এধরণের অসুখের ব্যাপারে স্বাস্থ্য বিভাগ বলছেন এগুলো সিজিনাল ব্যধি। এসময় এধরণের রোগ ব্যধি হতে পারে।

এরোগে আক্রান্তদের বেশি করে ভিটামিন সমৃদ্ধ খাবার খাওয়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

এদিকে রংপুর অফিসের আবহাওয়াবিদ মোস্তাফিজার রহমান জানান, সামনে শীতের মৌসুম আসছে। তাই আবহাওয়ার এই পরিবর্তন। আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে এ অঞ্চলে শীতের প্রকোপ শুরু হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button