রংপুর

রংপুরে সম্প্রীতির বাংলাদেশ গড়ার শপথ

স্টাফ রিপোর্টার,(রংপুর):
রংপুরে কমিউনিটি পুলিশিং দিবস উপলক্ষে  সম্প্রীতির বাংলাদেশ গড়ার শপথ নিয়েছেন হিন্দু, মুসলিম, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীরা। এ সময় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টকারী অপশক্তি রুখতে তাদের সঙ্গে শপথ করেছেন নানা শ্রেণীপেশার মানুষ। নগরীর বঙ্গবন্ধু ম্যুরাল চত্ত্বরে সম্প্রীতি সম্মেলনে এ শপথ বাক্য পাঠ করান মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার  মোহাম্মদ আবদুল আলীম মাহমুদ।

শনিবার (৩০ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১০টায় রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের (আরপিএমপি) আয়োজনে শান্তির প্রতীক পায়রা উড়িয়ে সম্প্রীতি সম্মেলনের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয় ।

এ বছর দিবসের প্রতিপাদ্য স্লোগান ‌‘মুজিববর্ষে পুলিশ নীতি, জনসেবা আর সম্প্রীতি’। 
মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সম্মত রেখে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের শান্তিপূর্ণ সহাবস্থানের বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করে সম্মেলনে বক্তব্য দেন মুসলিম ধর্মীয় নেতা বায়েজিদ হোসেন, হিন্দু ধর্মীয় নেতা ভক্তি প্রিয়ম গদাধর গোস্বামী মহারাজ, বৌদ্ধ ধর্মীয় নেতা শুভমিত্র ভিক্ষু, খৃীষ্টান ধর্মীয় নেতা বিজয় আকড়াসহ আরপিএমপির কর্মকর্তা ও কমিউনিটি পুলিশিংয়ের বিভিন্ন ইউনিটের নেতৃবৃন্দ। এতে সভাপতিত্ব করেন জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার ও কমিউনিটি পুলিশিংয়ের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোছাদ্দেক হোসেন বাবলু।

সমাবেশ শেষে একই স্থানে স্বেচ্ছায় রক্তদান ও ডায়াবেটিস পরীক্ষা ক্যাম্প শুরু হয়। সেখানে বিনামূল্যে বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষ রক্ত ও ডায়াবেটিস পরীক্ষা করানোর পাশাপাশি অনেকেই স্বেচ্ছায় রক্তদান করেন। দুপুর সাড়ে বারোটায় রংপুর জিলা স্কুল মাঠে প্রীতি টি-টুয়েন্টি ক্রিকেট ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়।

দিনব্যাপী আয়োজনে ছিল মাহিগঞ্জের মেকুড়া সড়কের দু’পাশে ২ কিলোমিটার পর্যন্ত সহস্রাধিক গাছের চারা রোপন ও বিভিন্ন এলাকায় দুঃস্থদের মাঝে উন্নতমানের খাবার বিতরণ কর্মসূচি।

বিকেলে রংপুর জিলা স্কুল অডিটরিয়ামে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গঠনে কমিউনিটি পুলিশিং এর ভূমিকা শীর্ষক আলোচনা সভা, পুরস্কার বিতরণ ও সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এছাড়া জেলার ৮টি থানায় পৃথক কর্মসূচি পালন করা হয়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button