রংপুর

রংপুর কর অঞ্চলে ৮৫০ কোটি টাকা রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা

আমিনুল ইসলাম জুয়েল (রংপুর)
রংপুর কর অঞ্চলে চলতি অর্থবছরে ৮৫০ কোটি টাকা রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে সোমবার (১ নভেম্বর) থেকে মাসব্যাপী আয়কর মেলা শুরু হচ্ছে।  ২০২০-২০২১ অর্থবছরে রংপুর অঞ্চলে লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছিল ৭৬০ কোটি টাকা। এর বিপরীতে রাজস্ব আদায় হয়েছে ৭৭৯ কোটি টাকা। যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ১৯ কোটি টাকা বেশি আদায় হয়েছে।

রোববার (৩১ অক্টোবর) দুপুরে রংপুর কর ভবনের সভাকক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান রংপুর কর অঞ্চল কমিশনার আবু হান্নান দেলওয়ার হোসেন।

কর কমিশনার জানান, করদাতাদের আয়কর রিটার্ন দাখিলের সুবিধার্থে আয়কর মেলার আদলে উৎসব মুখর পরিবেশে  ১ নভেম্বর থেকে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত আয়কর রিটার্ন গ্রহণ ও কর তথ্যসেবা প্রদান কার্যক্রম শুরু হতে যাচ্ছে।
গত বছর জুলাই থেকে সেপ্টেম্বর মাসে রাজস্ব আদায় করা হয়েছে একশ ১০ কোটি টাকা। চলতি বছর তা গিয়ে দাঁড়িয়েছে ১৩১ কোটি টাকা, যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ২১ কোটি টাকা বেশি। কর অঞ্চল রংপুরের আওতায় প্রতিমাসে গড়ে ৫ হাজার নতুন করদাতা যোগ হচ্ছে। করদাতারা যাতে হয়রানির শিকার না হয় সে জন্য সব ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। যারা করদাতাদের হয়রানি করবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তিনি আরো জানান, শুক্রবার ও শনিবারসহ সরকারি ছুটি ব্যতিত প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত পর্যাপ্ত সংখ্যক বুথের মাধ্যমে আয়কর রিটার্ন গ্রহণ, অনলাইনে রিটার্ন সাবমিশন বা ই-ফাইলিং বিষয়ে পরামর্শ প্রদান, তাৎক্ষণিক প্রাপ্তি স্বীকারপত্র প্রদান, রিটার্ন ও চালান ফরম প্রদান, আয়কর বিষয়ক পরামর্শ প্রদান, ই-টিআইএন রেজিস্ট্রেশন ও রি-রেজিস্ট্রেশন সেবা প্রদান করা হবে।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, ২০২০-২০২১ অর্থবছরে রংপুর অঞ্চলে লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছিল ৭৬০ কোটি টাকা। এর বিপরীতে রাজস্ব আদায় হয়েছে ৭৭৯ কোটি টাকা। আয়কর রিটার্ন জমা দিয়েছেন ৮৩ হাজার ২৮৩ জন করদাতা। সেবা গ্রহণ করেছেন ২ লাখ ৪৯ হাজার ৮৪৯ জন করদাতা। আয়কর আদায় হয়েছে ২৬ কোটি ৩৪ লাখ ৪৩ হাজার ২৫৫ টাকা। মোট টিআইএনধারী করদাতার সংখ্যা ২ লাখ ৯১ হাজার ৭৩১ জন।

মাসব্যাপী আয়কর রিটার্ন গ্রহণ ও কর তথ্যসেবা প্রদান মেলায় গাইবান্ধা ছাড়া বিভাগের দিনাজপুর, লালমনিরহাট, নীলফামারী, কুড়িগ্রাম, ঠাকুরগাঁও, পঞ্চগড় জেলা ছাড়া রংপুরের বদরগঞ্জ, দিনাজপুরের পার্বতীপুর, ফুলবাড়ি, বোচাগঞ্জ, ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ, পঞ্চগড়ের দেবিগঞ্জ ও কুড়িগ্রাম জেলার উলিপুর উপজেলায় সেবাপ্রদান চলবে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত কর কমিশনার মঞ্জুর আলম, সহকারী কর কমিশনার সৈয়দ নুরুল হুদা, উপ-কর কমিশনার তাজ মোহাম্মদ তরফদার, রাউফুর রহমান ও কর পরিদর্শক মহিদুল ইসলামসহ রংপুর কর অঞ্চলের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button