জাতীয়নীলফামারী

রাজাকার ও যুদ্ধাপরাধীর সন্তানরা আ’লীগে থাকতে পারবে নাঃ-সৈয়দপুরে মুক্তিযোদ্ধামন্ত্রী

আ.ক. ম মোজাম্মেল হক (ফাইল ছবি)

তারার আলো অনলাইন ডেস্ক: রাজাকার ও যুদ্ধাপরাধীর সন্তানরা কোনভাবেই আ’লীগ ও সহযোগী সংগঠনে থাকতে পারবে না। এটি শেখ হাসিনার নির্দেশ। এ নির্দেশ দলের সকল স্তরের নেতাকর্মীদের পালন করতে হবে।

মঙ্গলবার সকালে সৈয়দপুর বিমানবন্দরে সৈয়দপুর উপজেলা ও পৌর আ’লীগের নেতাকর্মীরা মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হকের সঙ্গে সাক্ষাত করতে গেলে এ সময় তিনি ওইসব কথা বলেন।

এদিন সৈয়দপুর উপজেলা ও পৌর আ’লীগের নেতাকর্মীরা মন্ত্রীকে অভিযোগ করে বলেন, শেখ হাসিনার নির্দেশনা মতে পৌর আ’লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক ও উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক কুখ্যাত রাজাকার পুত্র দিলনেওয়াজ খানকে গত ২৬ আগস্ট স্থানীয়ভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে। এমনকি ওই রাজাকার পুত্রের বিরুদ্ধে জনগণ কর্তৃক আনীত অভিযোগ এবং তার রাজাকার বাবার মরহুম নঈম খানের সকল কুকীর্তির তথ্য প্রমানাদি আ’লীগের কেন্দ্রীয় কমিটিকে ন্যাস্ত করা হয়েছে।

অথচ দীর্ঘ প্রায় দেড় মাসেও রাজাকার পুত্র দিলনেওয়াজ খানকে বহিষ্কারের আদেশ কেন্দ্রীয় কমিটি কার্যকর করেনি। মন্ত্রী অভিযোগের জবাবে বলেন, আমি নিজেই একজন মুক্তিযোদ্ধা। কোন অবস্থাতেই রাজাকার, যুদ্ধাপরাধীর সন্তানরা দলে ঠাই পাবে না। এ বিষয়টি আমি নিজেই প্রধানমন্ত্রীকে বলবো।

মন্ত্রী মঙ্গলবার নীলফামারীতে আ’লীগের দলীয় কার্যালয়ে উদ্বোধন উপলক্ষে ঢাকা থেকে বিমান যোগে সৈয়দপুর বিমানবন্দরে অবতরণ করেন। এরপর স্থানীয় উপজেলা ও পৌর আ’লীগের নেতাকর্মীদের সঙ্গে কথা বলে তিনি মোটর শোভাযাত্রা যোগে নীলফামারীর উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন।

এ দিন সৈয়দপুর বিমানবন্দরে উপস্থিত ছিলেন নীলফামারীর সদর আসনের এমপি ও সাবেক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর, সংরক্ষিত আসনের এমপি রাবেয়া আলীম, উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক মহসিনুল হক মহসিন, পৌর আ’লীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম বাবু, আ’লীগ নেতা অধ্যক্ষ সাখাওয়াত হোসেন খোকন, প্রকৌশলী একেএম রাশেদুজ্জামান রাশেদ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ উপজেলা শাখার সভাপতি মহসিন মন্ডল মিঠু, তাঁতীলীগের সাধারণ সম্পাদক মাসুদুর রহমান, গোলাম মোস্তফা প্রমুখ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button