নীলফামারী

সৈয়দপুরে আধুনিক প্রযুক্তিতে গরু হৃষ্টপুষ্টকরণ প্রকল্পের সচেতনতামূলক সেমিনার অনুষ্ঠিত

স্টাফ রিপোর্টার, সৈয়দপুর (নীলফামারী) :
নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলা প্রাণি সম্পদ দপ্তরের আয়োজনে দিনব্যাপী এক সচেতনতামূলক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। আধুনিক প্রযুক্তিতে গরু হৃষ্টপুষ্টকরণ প্রকল্পের আওতায় সৈয়দপুর উপজেলা প্রাণি সম্পদ দপ্তর মিলতায়তনে গত বৃহস্পতিবার ওই সেমিনারের আয়োজন করা হয়।।

উক্ত সচেতনতামূলক সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নীলফামারী জেলা প্রাণি সম্পদ দপ্তরের জেলা ট্রেনিং অফিসার ডা. মো. রাশেদুল হক।

সৈয়দপুর উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মর্কর্তা ডা. শ্যামল কুমার রায়ের সভাপতিত্বে সেমিনারে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা ভেটেরিনারী সার্জন ডা. মো. রফিকুল ইসলাম, পোল্ট্রি ডিলার মালিক সমিতির উপদেষ্টা ও সূচনা পোল্ট্রি এন্ড হ্যাচারি কর্ণারের স্বত্ত্বাধিকারী মিজানুর রহমান লিটন, উপজেলা ডেইরী এসোসিয়েশনের সভাপতি মো. সাঈদ আজিজ, সাধারণ সম্পাদক ইমরান ইমু, ওষুধ বিক্রেতা সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা কামাল প্রমূখ।

সেমিনারে জানানো হয়, বর্তমান সময়ে গো খাদ্য ও পোল্ট্রি খাদ্যের মূল্য অস্বাভাবিকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। এ অবস্থায় ফিড বিক্রেতাদের ন্যায্যমূল্যে খাদ্য বিক্রি,খাদ্যের অতিরিক্ত মজুদ না করার জন্য বলা হয়েছে। ফিডের বস্তার গায়ে আবশ্যিকভাবে উৎপাদন ও ব্যবহারের শেষ তারিখ উল্লেখ করা বিষয়ে দিকনিদের্শনা প্রদান করা হয়। এছাড়াও ফিডের খুচরা মূল্য সম্বলিত কাগজ ও মূল্য তালিকা ঝুলানোর ব্যাপারে বলা হয়েছে।

সেই সঙ্গে ভেটেরিনারী ওষুধ বিক্রেতাদের স্টেরয়েড ওষুধ ও এন্টিবায়েটিক যত্রতত্র ব্যবহার রোধকল্পে রেজিস্ট্রার্ড ভেটেরিয়ানের প্রেসক্রিপশন ছাড়া ওষুধ বিক্রি না করার জন্য বলা হয়। দোকানে ডিএলএস এর লাইসেন্সবিহীন ওষুধ বিক্রি না করার ব্যাপারে সচেতন করা হয়েছে।

অন্যদিকে, গরুর খামারীদের বেশি বেশি করে ঘাস চাষাবাদের ব্যাপারে উদ্ধুদ্ধ করা হয়, যাতে দানাদার খাদ্য খরচ কমানো যায়।
এতে খামারী, গো খাদ্য ও পোল্ট্রি বিক্রেতা এবং ভেটেরিনারী ওষুধ বিক্রেতাসহ ৫০জন অংশ নেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button