নীলফামারী

সৈয়দপুরে এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার এক হাজার পরীক্ষার্থী কোভিড-১৯ টিকা গ্রহন করেনি

স্টাফ রিপোর্টার, সৈয়দপুর (নীলফামারী):
নীলফামারীর সৈয়দপুরে ২০২১ সালের এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ১ হাজার ১১ জন পরীক্ষার্থী কোভিড-১৯ টিকা গ্রহন করেনি। সৈয়দপুর লায়ন্স স্কুল এন্ড কলেজে গতকাল বুধবার ও গত মঙ্গলবার ২০২১ সালের এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার পরীক্ষার্থীদের টিকা প্রদান করা হয়।

সৈয়দপুর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা গেছে, এবারে (২০২১ সাল) উপজেলায় এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষায় ১৪টি কলেজ, দুটি কারিগরী কলেজ (বিএম) ও ৬ টি আলিম মাদ্রাসা থেকে সর্বমোট পরীক্ষার্থী রয়েছে ৪ হাজার ৯৩ জন। আগামী ২ ডিসেম্বর থেকে অনুষ্ঠিতব্য এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা শুরুর আগেই এ সব পরীক্ষার্থীদের কোভিড-১৯ টিকাদানের উদ্যোগ গ্রহন করেন সরকার।

তারই ধারাবাহিকতায় গতকাল বুধবার ও গত মঙ্গলবার সৈয়দপুর উপজেলার ২০২১ সালের এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার পরীক্ষার্থীদের টিকা প্রদান করা হয়েছে। শহরের বিমানবন্দর সড়কের লায়ন্স স্কুল এন্ড কলেজে ওই টিকাদান করা হয়।

টিকাদানের শুরুতেই অর্থাৎ গত ২৩ নভেম্বর উপজেলার ছয়টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ১ হাজার ৪৫৮জন পরীক্ষার্থীকে ফাইজারের টিকা প্রদান করা হয়। আর দ্বিতীয় দিনে গতকাল বুধবার দ্বিতীয় দিনে এক হাজার ৬২৪জন পরীক্ষার্থীকে টিকা দেয়া হয়েছে।

এ নিয়ে গত দুই দিনে উপজেলার ২২টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের তিন হাজার ৮২জন পরীক্ষার্থীকে টিকা প্রদান করা হয়। এতে এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার্থীদের টিকাদানের হার দাঁড়িয়েছে ৭৫%। আর এ থেকে দেখা যায় উপজেলার ১ হাজার ১১জন এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার পরীক্ষার্থী টিকা গ্রহন থেকে বিরত রয়েছে।

এর আগে গত মঙ্গলবার সৈয়দপুর উপজেলার এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার পরীক্ষার্থীদের টিকাদান কার্যক্রম শুরু হয়। ওই দিন প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে টিকাদান কর্মসূচির শুভ উদ্বোধন করেন সৈয়দপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আবু মো. আলেমুল বাসার।

এ সময় সৈয়দপুর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা রেহেনা ইয়াসমীন, সৈয়দপুর উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার মো. আনোয়ার হোসেন, সৈয়দপুর লায়ন্স স্কুল এন্ড কলেজের পরিচালনা র্পষদের সভাপতি লায়ন মো. রেয়াজুল আলম রাজু, অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) মো. শফিয়ার রহমান সরকার,

সানফ্লাওয়ার স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ মোখলেছুর রহমান জুয়েল, লক্ষণপুর স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ রেজাউল করিম রেজাসহ অন্যান্য কলেজ অধ্যক্ষ ও শিক্ষক-শিক্ষিকা ও স্বাস্থ্য বিভাগের চিকিৎসক ও অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button