নীলফামারী

সৈয়দপুরে নবনির্মিত পৌরসভা কমিউনিটি সেন্টারের উদ্বোধন

স্টাফ রিপোর্টার, সৈয়দপুর :
শুক্রবার (২২ অক্টোবর) দৃষ্টিনন্দন ও অত্যাধুনিক সৈয়দপুর পৌরসভা কমিউনিটি সেন্টারের উদ্বোধন করা হয়েছে। স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম এমপি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বেলুন ও ফেস্টুন উড়িয়ে ও ফিতা কেটে এবং নামফলক উন্মোচন করে এটির শুভ উদ্বোধন করেন।

নবনির্মিত সৈয়দপুর পৌরসভা কমিউনিটি সেন্টারে দ্বিতীয়তলায় আয়োজিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন নীলফামারী – ৪ (সৈয়দপুর – কিশোরগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মো. আহসান আদেলুর রহমান আদেল।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব হেলাল উদ্দীন আহমেদ, নীলফামারী জেলা প্রশাসক মো. হাফিজুর রহমান চৌধুরী, নীলফামারী পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোখলেছুর রহমান বিপিএম,পিপিএম।

এতে সৈয়দপুর পৌরসভার মেয়র রাফিকা আকতার জাহান সভাপতিত্ব করেন ও স্বাগত বক্তব্য দেন। অনুষ্ঠানে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের প্রধান প্রকৌশলী আব্দুর রশিদ খান, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী মো. অলিউল্লাহ্, সৈয়দপুর উপজেলা চেয়ারম্যান মো. মোখছেদুল মোমিন, ভাইস চেয়ারম্যান মো. আজমল হোসেন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মোছা. সানজিদা বেগম লাকী, পৌরসভার প্যানেল মেয়র – ১ মো. শাহিন হোসেনসহ সকল কাউন্সিলর, সচিব মো. সিদ্দিকুর রহমান, নির্বাহী প্রকৌশলী শহিদুল ইসলাম, আমন্ত্রিত অতিথি, সুধীজন, সাংবাদিক, জনপ্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সৈয়দপুর পৌরসভার ১৪ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. জোবায়দুর রহমান শাহীন।

এর আগে প্রধান অতিথি স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম এমপি সৈয়দপুর পৌরসভা কমিউনিটি সেন্টারে চত্বরে এসে পৌঁছলে পুলিশের একটি সুসজ্জিত দল মন্ত্রীকে গার্ড অব অনার প্রদান করেন। পরে শহরের পুরাতন বাবুপাড়া ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের ক্ষুদ্রে শিক্ষার্থীরা সেখানে একটি মনোমুগ্ধকর ডিসপ্লে প্রদর্শন করে।

পৌরসভা সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় ও দাতা সংস্থা আইডিএ এর অর্থায়নে এ কমিউনিটি সেন্টারটি নির্মাণে আট কোটি ৭১ লাখ ১৮ হাজার ৩২৫ টাকা ব্যয় হয়েছে।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের মিউনিসিপ্যাল গভর্ন্যান্স এন্ড সার্ভিসেস (এমজিএসপি) প্রকল্পের আওতায় এটি নির্মাণ করা হয়। পাঁচতলা বিশিষ্ট এ কমিউনিটি সেন্টারের নিচতলায় সম্মেলন কক্ষ, দ্বিতীয় ও তৃতীয় তলায় কমিউনিটি সেন্টার, চতুর্থ তলায় আট কক্ষের গেস্ট হাউজ এবং পঞ্চম তলায় রয়েছে গণগ্রন্থাগার।

কমিউনিটি সেন্টারে লোকজনের উঠানামার জন্য আধুনিক লিফটসহ পুরো ভবনটি আধুনিক সুযোগ সুবিধায় সুসজ্জিত করা হয়েছে। দৃষ্টিনন্দন ও আধুনিক এ কমিউনিটি সেন্টার উদ্বোধনের মধ্যদিয়ে উত্তর জনপদের জনবহুল ও বাণিজ্য প্রধান সৈয়দপুর শহরের কমিউনিটি সেন্টারের অভাব অনেকাংশে দূর হলো।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button