নীলফামারী

সৈয়দপুরে বিরোধপূর্ণ জমিজমা নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষ : আহত – ৮

স্টাফ রিপোর্টার, সৈয়দপুর(নীলফামারী):
নীলফামারীর সৈয়দপুরে এক পল্লীতে বিরোধপূর্ণ জমিতে ইরি- বোরো ধানের চারা রোপনাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

সোমবার দুপুরে উপজেলার বাঙ্গালীপুর ইউনিয়নের পাঁচ নম্বর ওয়ার্ডের লক্ষণপুর চড়কপাড়ায় আব্দুর রউফ নিস্তার (৬৫) ও মোনায়েম উদ্দিন প্রামানিকের (৫০) পরিবারের সদস্যদের মধ্যে ওই সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘটে। এতে উভয়ে পক্ষের কমপক্ষে ৮ জন আহত হয়েছেন।

আহতদের মধ্যে পাঁচজনকে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত অন্যান্যরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

এ ঘটনায় এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। খবর পেয়ে সৈয়দপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
অভিযোগে জানা গেছে, উপজেলার বাঙ্গালীপুর ইউনিয়নের উল্লিখিত এলাকার বাসিন্দা মৃত. আব্দুল মান্নান প্রামানিকের ছেলে মো. মোনায়েম উদ্দিন প্রামানিক, মশিয়ার রহমান প্রামানিক ও মোহাম্মদ আলী প্রামানিক। তারা তিন সহোদর ভাই যৌথভাবে লক্ষণপুর চড়কপাড়া মৌজায় ১২০৩ দাগে এবং বিএস ৯৭১ ও বিএস ৩২৮ খতিয়ানে ৩২ শতক জমি কবলা দলিলমূলে কিনে দীর্ঘদিন যাবৎ চাষাবাদ করেন আসছিলেন।

কিন্তু ওই জমিরই কিছু অংশ নিজেদের বলে দাবি করেন মৃত. আব্দুল মান্নান প্রামানিকের অপর দুই ছেলে আব্দুল রঊফ ওরফে নিস্তার প্রামানিক ও আব্দুল মোতালেব হোসেন প্রামানিক গংরা।

এ নিয়ে তাদের মধ্যে দীর্ঘদিন যাবৎ চরম বিরোধ চলে আসছিল। ঘটনার দিন গত সোমবার সকালে জমির মালিক মোনায়েম উদ্দিন প্রামানিক লোকজন নিয়ে তাঁর ভোগদখলকৃত জমিতে চলতি ইরি- বোরো ধানের চারা রোপন করতে যান।

এ সময় ওই জমির কিছু অংশের দাবিদার আব্দুর রঊফ ওরফে নিস্তার ও তাঁর ভাই আব্দুল মোতালেবের ছেলে ফাহিম প্রামানিক ওরফে ফুয়াদ এর নেতৃত্বে তাঁর ভাই মিন্টু প্রামানিক (৩৪), ফারুক হোসেন (২৫) ওআল-আমিন প্রামানিক (২৩) এবং আব্দুর রঊফ ওরফে নিস্তারের ছেলে সুজন প্রামানিক (২৫) ও স্বপন প্রামানিকসহ (২৭) আরো কয়েকজন লাঠিসোটা নিয়ে মোনায়েম উদ্দিন ও তাঁর ছেলে রিয়াজুল হাসান মিনারের (১৬) ওপর আক্রমণ করে।

এ সময় আক্রমণকারী লাঠি সোটা নিয়ে তাদেরকে এলোপাতাড়ি মারপিট করতে থাকে। আর তাদের ওপর আক্রমণের খবর পেয়ে মোনায়েম উদ্দিনের পরিবারের সদস্যরা এগিয়ে গেলে তাদের ওপর আক্রমন করা হয়।

এতে সেখানে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে উভয় পক্ষের ৮ জন আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে গুরুতর আহত মোনায়েম উদ্দিন প্রামানিক (৫০), তাঁর স্ত্রী মমতাজ বেগম (৪০), বড় মেয়ে মিলি খাতুন (২৭), ছোট মেয়ে রংপুর কারমাইকেল কলেজের শিক্ষার্থী রুকাইয়া আক্তার মিতু (২৩) ও ছেলে রিয়াজুল হাসান মিনার (১৬) এবং মৃত.আব্দুস সাত্তারের ছেলে মো. মিলন প্রামানিককে (৪১) সৈয়দপুর ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ সংঘর্ষের ঘটনায় অপর পক্ষের আহত আব্দুর রউফ ওরফে নিস্তারকেও একই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এদিকে, জমিজমা নিয়ে এ সংঘর্ষের ঘটনার খবর জরুরী সেবা ৯৯৯ মাধ্যমে পেয়ে সৈয়দপুর থানার উপ-পরিদর্শক লক্ষèী নারায়ন বর্মণ সঙ্গীয় পুলিশ সদস্যদের নিয়ে ঘটনাস্থলে ছুঁটে যান।

সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল হাসনাত খান উপজেলার বাঙ্গালীপুর ইউনিয়নের লক্ষণপুর চড়কপাড়ায় জমিজমা নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষের কথা স্বীকার করেন।

তিনি বলেন, এ নিয়ে এর আগেও মোনায়েম উদ্দিন প্রামানিকের পক্ষ থেকে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, এর আগেও গত ১৮ জানুযারি মোনায়েম উদ্দিন প্রামানিক কর্তৃক বিরোধপূর্ণ জমিতে লাগানো ইরি-বোরো ধানের চারা উপড়িয়ে ফেলাকে নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সে সময় মোনায়েম উদ্দিন প্রামানিকের পক্ষ থেকে সৈয়দপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়।

থানা পুলিশ বিরোধপূর্ণ জমিজমার কাগজপত্র নিয়ে উভয় পক্ষকে থানায় আসতে বলেন। কিন্তু আব্দুর রউফ ওরফে নিস্তারগংরা আর থানায় আসেননি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button