নীলফামারী

হাতিবান্ধায় ইউপি সদস্য প্রার্থীর খড়ের গাদায় আগুন

লালমনিরহাট প্রতিনিধি : লালমনিরহাটের হাতিবান্ধায় প্রতিপক্ষের দেওয়া আগুনে এক ইউপি সদস্য প্রার্থীর খড়ের গাদা পুড়ে ছাই হওয়ার অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার সানিয়াজান ইউনিয়নের পাঁচ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য পদ প্রার্থী আব্দুল আজিজের বাড়িতে। সোমবার (২৯ নভেম্বর) দিবাগত রাত ৯টার দিকে এঘটনা ঘটে বলে জানা যায়। এঘটনায় আব্দুল আজিজ বাদী হয়ে হাতিবান্ধা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, সোমবার রাতে ওই ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের অন্তর্গত মোকাদ্দেস নগরে আব্দুল আজিজ তার কর্মী-সমর্থকদের সাথে নিয়ে স্থানীয় ভোটাদের সাথে আলোচনা করছিলেন। এসময় তার বসতবাড়ির আঙ্গীনায় থাকা খড়ের গাদায় আগুন লাগানোর খবর পেয়ে বাড়িতে ছুটে যান। এলাকাবাসী আগুন নিভাতে ব্যর্থ হলে স্থানীয় ফায়ার সার্ভিসে খবর দেওয়া হয়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সদস্যরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণ আনে। এঘটনায় আব্দুল আজিজ রাতেই হাতিবান্ধা থানায় হাজির হয়ে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
আব্দুল আজিজ সাংবাদিকদের বলেন, আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আমি ৫ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য পদে প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দিয়েছি। আমার নির্বাচিত হওয়ার সম্ভাবনাও অনেক বেশি আছে। এজন্যই হয়তো প্রতিপক্ষের লোকজন আমার বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেওয়ার উদ্দেশ্যেই আমার খড়ের গাদায় আগুন লাগিয়ে দিয়েছে। কোকন প্রতিপক্ষ এ কাজ করেছে তা জানি না। তবে বাড়ির কাছেই এক প্রতিপক্ষের দোয়া মাহফিল চলছিল। হতে তারাই এ ঘটনা ঘটিয়েছে।
হাতিবান্ধা ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সের স্টেশন অফিসার মনির হোসেন বলেন, খবর পেয়ে দ্রæত আমরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনি। এতে প্রায় লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে অনুমান করা যাচ্ছে। তবে ওই খড়ের গাদার আশেপাশে কোন বৈদ্যুতিক তার বা আগুনের সূত্রপাত হতে পারে এমন কিছুই ছিল না। তাই ধারনা করা হচ্ছে এটি কারও ইচ্ছাকৃত ভাবে লাগিয়ে দেওয়া আগুন।
হাতিবান্ধা থানার ভারপ্রাপ্ত অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এরশাদুল আলম বলেন, এ সংক্রান্ত একটি লিখিত অভিযোগ আমরা পেয়েছি। তদন্ত করে ঘটনার সাথে জড়িত প্রকৃত দোষীদের আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button