লালমনিরহাট

হাতীবান্ধায় চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে পাকা ওয়াল নির্মাণ

লালমনিরহাট সংবাদদাতা : লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার নওদাবাস এলাকায় চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দিয়ে পাকা দেয়াল নির্মাণ করার অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সকাল ১১টার দিকে উপজেলার নওদাবাস ইউনিয়নের কালীবাড়ির শ্রীশ্রী রাধাগোবিন্দ মন্দিরের পাশে এ ঘটনা ঘটে।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, নওদাবাস ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ডের কালীবাড়ি এলাকার শ্রীশ্রী রাধাগোবিন্দ মন্দিরে পাশে চলাচলের জন্য ২০১৯ সালের ২০ ফেব্রæয়ারি ৬৩৭ নং দলিলে ২ শতাংশ জমি ক্রয় করেন ওই এলাকার বসন্ত কুমার (৬৪), রঞ্জিত চন্দ্র বর্মন (৩৪), রতনেশ্বর বর্মন (৫০) ও রঞ্জিত চন্দ্র বর্মন (৪৬)। তখন থেকে ঐ রাস্তা দিয়ে তারা চলাচল করে আসছেন। এমতাবস্থায় হঠাৎ করে গত ৩০ সেপ্টেম্বর সকাল ১১টার দিকে সেই রাস্তা বন্ধ করে দিয়ে পাকা দেয়াল নির্মাণ করেন রতনেশ্বর বর্মন। তা দেখে বসন্ত কুমার ও রঞ্জিত চন্দ্র বর্মন বাধা দিতে গেলে অভিযুক্ত রতনেশ্বর বর্মন তাদের বিভিন্ন প্রকার হুমকি দেয় এবং তার ক্ষমতাবলে সে রাস্তা বন্ধ করে পাকা ওয়াল নির্মাণ করবেই বলে জানিয়ে দেয়। এতে নিজ নিজ বাড়িতে অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে কয়েকটি পরিবার। বন্ধ হয়ে যায় শতশত লোকের যাতায়াতের একমাত্র রাস্তাটি।

এবিষয়ে বসন্ত কুমার বিভিন্ন জনকে মৌখিকভাবে বিচার দিলে কেউই এগিয়ে না আসায় অবশেষে ৩ অক্টোবর রাতে রতনেশ্বর বর্মনের বিরুদ্ধে হাতীবান্ধা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। এদিকে থানায় ও সাংবাদিককে অভিযোগ দেয়ায় চটে গেছে স্থানীয় এক জনপ্রতিনিধি। ফলে বিষয়টি দ্রুত সমাধান না হয়ে ঘোলাটে পরিস্থিতি সৃষ্টির আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

এবিষয়ে কথা হলে অভিযুক্ত রতনেশ্বর বর্মন বলেন, আমি তাদের চলাচলের কোন রাস্তা বন্ধ করিনি। আমার সীমানায় আমি পাকা ওয়াল নির্মাণ করতে গেলে তারা আমাকে বাঁধা দেয়। আমার সীমানায় আমি যা ইচ্ছে করতেই পারি, এতে কারোরই বাধা দেওয়ার কোন অধিকার নেই।
এবিষয়ে কথা হলে নওদাবাস ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ড সদস্য খোকা মিয়া বলেন, বিষয়টি জানার পর আজকে (৫ অক্টোবর) বসে তা মিমাংসা করে দেয়ার কথা ছিলো। সকাল থেকে প্রচুর বৃষ্টি হওয়ায় বসা হয়নি। এখনি ঘটনাস্থলে গিয়ে বিষয়টি দেখতেছি।

হাতীবান্ধা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এরশাদুল আলম বলেন, এবিষয়ে একটা লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনার বিষয়ে তদন্ত না করে কিছু বলতে পারবো না। তদন্তে অভিযোগের সত্যতা পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button