রংপুর

৬ জনের বিরুদ্ধে র‌্যাবের মামলা : প্রধান আসামী পলাতক

তারার আলো অনলাইন ডেস্ক :-
নীলফামারী সদরের সোনারায় ইউনিয়নের পুটিহাড়ি মাঝপাড়া গ্রামের একটি বাড়িতে অভিযান চালিয়ে র‌্যাব ৫ জঙ্গীকে গ্রেফতার করার ঘটনার গত রোববার সকালে নীলফামারী থানায় ৬ জনের বিরুদ্ধে সন্ত্রাস বিরোধী আইনে মামলা হয়েছে।

মামলার বাদী র‌্যাব-১৩ রংপুরের উপসহকারী পরিচালক (ডিএডি) আব্দুল কাদের। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রংপুরের র‌্যাব ও নীলফামারীর র‌্যাব-১৩ গত শুক্রবার রাতভর পুটিহাড়ি মাঝপাড়া গ্রামের শরিফুল ইসলামের বাড়ী ঘিরে ৫ জনকে গ্রেফতার করে গত শনিবার সকালে। তবে বাড়ির মালিক সদর উপজেলার চাপড়া সরমজানি ইউনিয়নে জহুরুল ইসলামের শরিফুল ইসলাম প্রধান আসামী হলেও সে এখনও ধরা ছোঁয়ার বাইরে আছে।

এ মামলায় অন্যান্য আসামীরা হচ্ছেন গ্রেফতারকৃত সোনারায় ইউনিয়নের তেলিপাড়া উত্তর মুশরত কুখাপাড়া এলাকারমৃত মকবুল হোসেনের দুই ছেলে ওহিদুল ইসলাম ও জাহেদুল ইসলাম, সংগলশী ইউনিয়নের বালাপাড়া এলাকার তছলিম উদ্দিনের ছেলে আব্দুল আল মামুন ওরফে রেজা, চড়াইখোল ইউনিয়নের বন্দর চড়াইখোলা গ্রামের অজো উদ্দিনের ছেলে ওয়াহেদ আলী, সোনারায় ভবানীমোড় এলাকার রজব আলীর ছেলে ও তেলিপাড়া জামে মসজিদের ইমাম নূর আমিন।

র‌্যাব-১৩ এর সহকারী পরিচালক মিডিয়া ফ্লাইট লেফটেনেন্ট মাহমুদ বশির আহমেদ জানান, গ্রেফতারকৃত ৫ জনই জেএমবির সামরিক শাখার সক্রিয় সদস্য। তাদেরকে নীলফামারী থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

নীলফামারী থানায় ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুর রউপ বলেন, মামলা হয়েছে। এতে আরোও ৬ জনকে আসামী হিসাবে রাখা হয়েছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button